Wellcome to National Portal
সমাজসেবা অধিদফতর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২১st সেপ্টেম্বর ২০২২

সামাজিক নিরাপত্তা অধিশাখা

2022-08-04-09-22-564ee1c122480e6453eb80a8d360c9df 

নাম

ড. মোঃ মোকতার হোসেন (উপসচিব)

পদবি

পরিচালক (সামাজিক নিরাপত্তা)

-মেইল

dir.ss@dss.gov.bd

ফোন (অফিস)

+৮৮০২৪৪৮২৬৮০১

সরকারের সমাাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী কর্মসূচিসমূহ বাস্তবায়নে যে সকল মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তর কাজ করে থাকে তার মধ্যে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়াধীন সমাজসেবা অধিদপ্তর অন্যতম। সামাজিক নিরাপত্তা কৌশল (NSSS) -২০১৫ এ সমাজসেবা অধিদপ্তরকে সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী ক্লাস্টারে লিডিং অধিদপ্তর হিসেবে দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে। সমাজসেবা অধিদপ্তর কর্তৃক বাস্তবায়িত নগদ অর্থ সহায়তার কর্মসূচিসমূহের সকল উপকারভোগীকে G2P  পদ্ধতিতে অর্থ পরিশোধ করা হচ্ছে। ২০২১-২২ অর্থবছরে ১ কোটি ৪ লক্ষ ১৪ হাজার ৪২ জনকে G2P পদ্ধতিতে অর্থ পরিশোধ করা হয়েছে। ২০২২-২৩ অর্থবছরে ১ কোটি ৮ লক্ষ ২১ হাজার ৪২ জনকে G2P  পদ্ধতিতে অর্থ পরিশোধ করা হবে। প্রত্যেক উপকারভোগী ৩ মাস অন্তর ৪ বারে তার প্রাপ্য অর্থ স্বীয় মোবাইল হিসাব নম্বর (নগদ/বিকাশ) এবং এজেন্ট ব্যাংকিং এর মাধ্যমে পেয়ে থাকেন। সমাজসেবা অধিদপ্তর নিম্নোক্ত কর্মসূচি সমূহের উপকারভোগীর অনুকূলে G2P পদ্ধতিতে অর্থ পরিশোধ করে থাকে:

 

১. বয়স্কভাতা- ৫৭ লক্ষ ০১ হাজার জন।

২. বিধবা ও স্বামী নিগৃহিতা মহিলা ভাতা- ২৪ লক্ষ ৭৫ হাজার জন।

৩. প্রতিবন্ধী ভাতা- ২৩ লক্ষ ৬৫ হাজার জন।

৪. প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষা উপবৃত্তি কর্মসূচি- ০১ লক্ষ জন।

৫. চা শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়ন কর্মসূচি- ৬০ হাজার জন।

৬. হিজড়া জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন কর্মসূচি-

(ক) বিশেষ ভাতা- ২৬০০ জন

(খ) উপবৃত্তি – ১২২৫ জন

৭. বেদে জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন কর্মসূচি-

(ক) বিশেষ ভাতা- ৫০৬৬ জন

(খ) উপবৃত্তি – ৩৯৯৮ জন

৮. অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন কর্মসূচি-

(ক) বিশেষ ভাতা- ৪৫২৫০ জন

(খ) উপবৃত্তি – ২১৯০৩ জন

এছাড়াও জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের মাধ্যমে হিজড়া জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন কর্মসূচিতে ১৯২০ জনকে, বেদে জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন কর্মসূচিতে ৫০০ জনকে এবং অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন কর্মসূচিতে ২৪২০ জনকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে।

৯. ক্যান্সার, কিডনী, লিভার সিরোসিস, স্ট্রোকে প্যারালাইজড, জন্মগত হৃদরোগ এবং থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত রোগীদের আর্থিক সহায়তা কর্মসূচিতে বাৎসরিক এককালীন ৫০,০০০ টাকা করে ৪০,০০০ জন দুরারোগ্য রোগী আর্থিক সহায়তা পাবেন।

 

 

সামাজিক নিরাপত্তা অধিশাখা আওতাধীন জনবল কাঠামো

 

০১ জন পরিচালক, ৪ জন অতিরিক্ত পরিচালক, ৬ জন উপপরিচালক, ৮ জন সহকারী পরিচালক, ৯ জন সমাজসেবা অফিসার, ০৮ জন প্রশাসনিক কর্মকর্তাসহ সর্বমোট ৬৮ (আটষট্টি) জনের জনবল নিয়ে সামাজিক নিরাপত্তা অধিশাখা পরিচালিত হচ্ছে।


Share with :

Facebook Facebook